কীভাবে একটি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন বানাবেন এবং ইন্সটল করবেন?

প্লাগইন সম্ভবত ওয়ার্ডপ্রেস এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন। প্লাগইন দিয়ে মুহুর্তেই আপনি সকল সুযোগ-সুবিধা আপনার সাইটে যুক্ত করতে পারেন। কিন্তু কখনও কখনও আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী প্লাগইন নাও পেতে পারেন, বা অতিরিক্ত ফাংশনের কারণে কোন একটি প্লাগইন বাদ দিতে চাইতে পারেন, বা অন্য যেকোন কারণে প্লাগইন বানাতে চাইতে পারেন।

ছোট ছোট ফাংশন দিয়ে আপনার ওয়েবসাইটের সমস্যা গুলো সমাধান করার জন্য প্লাগইন বানাতে চাইতে পারেন। এতে আপনি ঠিক যা চাইবেন তাই পাবেন এবং এতে অনেক প্লাগইন এর কারণে জগাখিচুড়ী হওয়ার ঝুঁকি কমে যাবে। এ কারণেই প্লাগইন বানানোর সিদ্ধান্ত অবশ্যই ভাল আপনি যেই হোন না কেন!

আজকে আমরা খুব সাধারণ একটি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন বানানো শিখব যেটা আপনার ওয়েবসাইটের body ট্যাগে নতুন একটা এইচটিএমএল class যুক্ত করবে। চলুন তাহলে প্রথম ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন তৈরি শুরু করা যাক!

কীভাবে একটি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন বানাবেন?

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন বানানো আপনার ধারণার চাইতে অনেক বেশি সহজ! সত্যি বলতে, সামান্য জ্ঞান বা অভিজ্ঞতা নিয়ে মাত্র কয়েক লাইনের কোড দিয়ে একটি প্লাগইন বানিয়ে ফেলা যায়।

ওয়ার্ডপ্রেস এর মতই, একটি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন কাজ করার জন্য এটিকে অবশ্যই পিএইচপি প্রোগ্রামিং এ কোড করতে হবে। প্রথমে আপনার কম্পিউটারে একটি পিএইচপি ফাইল তৈরি করুন, ধরুন এটি my-first-plugin.php, এবং সেই ফাইলটি একটি টেক্সট এডিটর এ খুলুন, এবং তারপর ফাইলটিতে পিএইচপি কাজ করার জন্য এই লিখা যুক্ত করুনঃ

<?php

দয়া করে “<?php” লিখার আগে কিছুই দিবেন না (স্পেসও না!) কারণ এতে আপনার সাইট ভেঙে যেতে পারে।

প্রথম লাইন লিখার পর এখন আপনাকে কিছু প্লাগইন বিষয়ক তথ্য যুক্ত করতে হবে এবং এদেরকে /* এবং */ অক্ষরগুলোর মধ্যে রাখতে হবে। সুনির্দিষ্ট তথ্য ঘোষণার জন্য সুনির্দিষ্ট ট্যাগ আছে। নিচের মত করে কিছু তথ্য যোগ করুনঃ

/*
Plugin Name: My First Plugin
Plugin URI:  https://bydik.com
Description: Plugin to add custom body class to my site.
Version:     1.0
Author:      Faisal Kabir
License:     GNU General Public License v2 or later
*/

আপনি আপনার ইচ্ছেমত তথ্য সমূহ পরিবর্তন করতে পারেন কিন্তু ট্যাগ সমূহ পরিবর্তন করবেন না, কাজ করবে না। উদাহরণস্বরূপ, আপনি “Author” ট্যাগটিকে যদি “Plugin Author” এ পরিবর্তন করেন তাহলে কাজ হবে না।

এখানে শুধুমাত্র “Plugin Name” ট্যাগটিই আবশ্যিক একটি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন কাজ করার জন্য, বাকী সবগুলোই ঐচ্ছিক। প্লাগইনের তথ্য লিখার সবগুলো ট্যাগ বিবরণসহ পাবেন এখানে

এখন আপনি ফাইলে পছন্দমত ফাংশনগুলো যুক্ত করতে পারেন, কিন্তু ফাংশন যুক্ত করার আগে ফাইলটি যাতে সরাসরি নাগাল পাওয়া না যায় সে ব্যবস্থা করার পরামর্শ সবসময় দেয়া হয়। নিচের কোডটি হচ্ছে সে জন্যঃ

if ( ! defined( 'ABSPATH' ) ) die();

এখন চলুন আপনার সাইটের body ট্যাগে পছন্দমত একটি class যুক্ত করার জন্য প্রয়োজনীয় ফাংশন যুক্ত করি, আমরা “my-plugin-loaded” class টি যুক্ত করব। এটার জন্য দরকার হবে এই কোডটিঃ

add_filter( 'body_class', 'my_custom_body_class' );
function my_custom_body_class( $class ) {
    $class[] = 'my-plugin-loaded';
    return $class;
}

এই কয়েক লাইনের কোড দিয়েই আপনি যা চেয়েছেন তা হয়ে যাবে! আপনি এই কোডটিতে class এর নাম “my-plugin-loaded” কে আপনার ইচ্ছেমত পরিবর্তন করতে পারবেন, যা ভেবেছিলেন তার চেয়েও সহজ!

সব কোডঃ চলুন এতক্ষণ আলোচনা করা সব কোড একসাথে করি। আমরা এতক্ষণ যা কোড করলামঃ

<?php
/*
Plugin Name: My First Plugin
Plugin URI:  https://bydik.com
Description: Plugin to add custom body class to my site.
Version:     1.0
Author:      Faisal Kabir
License:     GNU General Public License v2 or later
*/
// No direct access
if ( ! defined( 'ABSPATH' ) ) die();

// Custom body class for my site
add_filter( 'body_class', 'my_custom_body_class' );
function my_custom_body_class( $class ) {
    $class[] = 'my-plugin-loaded';
    return $class;
}

আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে ইন্সটল করার জন্য এখন এই ফাইলটি সেভ করুন। চলুন এবার প্রথম প্লাগইনটি ইন্সটল করা যাক!

কীভাবে প্লাগইন ফাইল ইন্সটল করবেন?

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন ইন্সটল করা খুব সহজ, কোন ব্যাপার না আপনার FTP সার্ভারে প্রবেশাধিকার আছে কি নাই! এখন শিখব মাত্র তৈরি করা পিএইচপি প্লাগইন ফাইলটি কিভাবে ইন্সটল করতে হয় তা।

আপনার যদি FTP সার্ভারে প্রবেশাধিকার থাকে, তাহলে আপনার সাইটের প্লাগইনের ফোল্ডারটি (wp-content/plugins) খুলুন, এবং তারপর নতুন নামে সেখানে একটি ফোল্ডার বানান। আপনি যদি FTP অ্যাপস ব্যবহার করে থাকেন, যেমন FileZilla, তাহলে “plugins” এ ডান-বাটন ক্লিক করুন এবং তারপর অপশন থেকে “Create directory” বাছাই করে নতুন ফোল্ডার খুলুন।

FileZilla দিয়ে নতুন ফোল্ডার

এখন নতুন তৈরি করা ফোল্ডারটিতে আগের তৈরি করা প্লাগইন ফাইলটি আপলোড করুন। আপলোড শেষ হলে, আপনার তৈরি করা প্রথম প্লাগইনটি ইন্সটল করা শেষ।

FTP সার্ভারে প্রবেশাধিকার নাই? ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড থেকে সহজেই প্লাগইন ইন্সটল করা যায়।

ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড থেকে প্লাগইন ইন্সটল করতে প্রথমে আপনার পিসিতে একটি নতুন ফোল্ডার করে আমাদের তৈরি করা প্লাগইন ফাইলটি রাখুন, তারপর প্লাগইন ফাইল রাখা ফোল্ডারটিকে .zip ফরম্যাটে কম্প্রেস করতে হবে। এটা করা শেষ হলে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড থেকে প্লাগইনটি ইন্সটল করতে পারবেন।

প্রথমে যাবেন Plugins > Add New, তারপর “Upload Plugin” এ ক্লিক করুন, তারপর “Choose File” এ ক্লিক করে .zip ফরম্যাটে কম্প্রেস করা ফাইলটি বাছাই করুন, এবং সবশেষে প্লাগইন ইন্সটল করতে “Install Now” এ ক্লিক করুন।

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন আপলোড

প্লাগইন চালুকরণঃ প্লাগইনটি ইন্সটল করার পর, ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড থেকে Plugins পেইজে গেলেই আপনার ইন্সটল করা প্লাগইনটি দেখতে পাবেন এবং প্লাগইনটি তৈরি করার সময় যা যা তথ্য দেয়া হয়েছে তাও দেখতে পাবেন। আপনার প্লাগইনটি এখন চালু করার জন্য প্রস্তুত, প্লাগইনটি চালু করতে “Activate” এ ক্লিক করুন।

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন চালুকরণ

প্লাগইনটি চালু করা হয়ে গেলে, আপনার ওয়েবসাইটের body ট্যাগে “my-plugin-loaded” এইচটিএমএল class টি যুক্ত হয়েছে কিনা যাচাই করে দেখুন। আমাদের যাচাই কোন ঝামেলা ছাড়াই সফল হয়েছেঃ

প্রয়োজনমত ওয়ার্ডপ্রেস Body Class

আপনার ক্ষেত্রেও যদি আমাদের মত হয়ে থাকে, তাহলে আপনি একজন প্লাগইন ডেভেলপার! আপনাকে অভিনন্দন এবং ডেভেলপার এর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! কিভাবে প্লাগইন বানাতে হবে এবং ইন্সটল করতে হবে তা আপনি শিখে গেছেন, এবং এটা আপনাকে সামনের দিনে ওয়ার্ডপ্রেসকে নিয়ে চলতে স্বাচ্ছন্দ্য দিবে।

আপনি এই প্লাগইন ফাইলে যত খুশি তত ফাংশন যোগ করতে পারেন আপনার সাইটকে সাজানোর জন্য। আপনার সাইট পরিচালনা এবং সংশোধনের দক্ষতা বাড়াতে লজ্জা পাওয়ার কিছু নেই, কাজ করার জন্য অনেক উপকরণ পাবেন। কে বলতে পারে, ভবিষ্যতে আপনিও হতে পারেন Jetpack এর মত জটিল প্লাগইনের ডেভেলপার!

শেষ কথা

আপনি প্লাগইন ছাড়া একটি ওয়ার্ডপ্রেস সাইট চিন্তাও করতে পারবেন না, ব্যবসায়িক সাইটে অনেক বেশি প্লাগইন থাকে। ওয়ার্ডপ্রেস ওপেন-সোর্স প্রকৃতির হওয়ায়, যে কেউ এই অ্যাপ্লিকেশান এ ফাংশন যোগ করতে পারে। তাহলে আপনি কেন নয়? শুরু করার সবচেয়ে ভাল উপায় হচ্ছে, নিজেই একটি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন তৈরি করা।

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন বানানো এবং ইন্সটল করা একদম সহজ কাজ। এক কথায় বলতে গেলে, একটি পিএইচপি ফাইল তৈরি করতে হবে, প্লাগইনের কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য দিতে হবে, এবং তারপর প্রয়োজনমত ফাংশন যোগ করতে হবে। এই প্লাগইন ফাইলটি ওয়ার্ডপ্রেস এর প্লাগইনস ফোল্ডারে রাখলেই ইন্সটল হয়ে যাবে।

আজ এতটুকুই! আপনার কিছু জানার থাকলে কমেন্ট করে জেনে নেবেন। ভাল থাকবেন।

Leave a Reply

Email address will not be published. Remember to keep comments follow our guidelines.